মেঘলা আনজুম

৫ বছর আগে

রোদ থেকে চোখ বাঁচাই

বাইরে বের হওয়ার আগে এখন আমরা নানা রকম প্রস্তুতি নিই। সানস্ক্রিন লোশন ব্যবহার, রোদচশমা পরা আরও কত কী! এসব করার একটাই কারণসূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি থেকে নিজেকে বাঁচানো।

রোদচশমা ছাড়া বাইরে যাওয়া যাবে না। তবে সাধারণ রোদচশমা চোখকে সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মির ক্ষতিকর প্রভাব থেকে বাঁচাতে পারে না। তাই অতিবেগুনি রশ্মিকে প্রতিরোধ করবে, এমন রোদচশমা ব্যবহার করতে হবে। আর অবশ্যই এমন রোদচশমা ব্যবহার করবেন, যেন তা আপনার পুরো চোখকে সুন্দরভাবে ঢেকে রাখে।

নিজের চোখের ব্যাপারে হতে হবে সচেতন। বাইরে কাজ করলেও যেদিকে রোদ বেশি পড়ছে, তার উল্টো দিকে থাকার চেষ্টা করুন। আর সরাসরি রোদের দিকে না তাকানোই ভালো।

এমন দিনে বাইরে বের হওয়ার আগে ছাতা নিতে ভুলবেন না। ছাতা আপনার চোখকে সূর্যের সরাসরি রশ্মি থেকে রক্ষা করবে। তবে আমাদের চারপাশ থেকে প্রতিফলিত হয়ে সূর্যের যেসব রশ্মি চোখের ক্ষতি করে, সেগুলো থেকে বাঁচতে রোদচশমার বিকল্প নেই।

প্রচণ্ড গরম, সেই সাথে যোগ হয়েছে ধুলোবালি। এই গরমে যতই এগুলো থেকে দূরে থাকতে চান না কেন, ঘুরে-ফিরে সেগুলোর মাঝেই থাকতে হয় আমাদের। ত্বকে না হয় সানস্ক্রিন বা লোশনে কাজ চালিয়ে নিতে পারেন, কিন্তু চোখ? এই প্রচণ্ড রোদে সানগ্লাস খুব উপকারী। গরমেই মূলত চোখের নানা ধরনের সমস্যা হয়ে থাকে। আর এর সাথে, কারও যদি মাইগ্রেন বা সাইনাসের সমস্যা থাকে তাহলে তো কথাই নেই! এসব সমস্যা থেকে খুব সহজে রেহাই পাওয়ার একমাত্র উপায় হলো সানগ্লাস ব্যবহার করা।

 

ব্র্যান্ডেড জিনিসের প্রতি প্রায় সবারই একটা বাড়তি আকর্ষণ থাকে। ফুটপাত থেকে শুরু করে বহুতল বিপণী সবখানেই সানগ্লাসের দোকান খুঁজে পাওয়া যায়।

হালের ফ্যাশনে গা না ভাসিয়ে নিজের পছন্দের সাথে মিলিয়ে সানগ্লাস কেনাই বুদ্ধিমানের কাজ। যেমন মাপেরই সানগ্লাস বাজারে আসুক না কেন, সেটা কেনার আগে অবশ্যই যাচাই-বাছাই করে নেবেন। সেটা আপনাকে মানাচ্ছে কি না! গোলগাল চেহারা হলে অবশ্যই আপনি সানগ্লাস গ্লাসটা যেন একটু লম্বাটে ধরনের হয় সেদিকে খেয়াল রাখবেন। আবার একটু লম্বাটে ধরনের মুখ হলে ডাম্বেল আকৃতি বা মুগুরাকৃতির সানগ্লাস বেশ ভালো মানাবে। খেয়াল রাখবেন, চোখের কোল ঢেকে যায় এমন সানগ্লাস ব্যবহার করুন।

(সংগৃহীত)

 

নক্ষত্র ই –কমার্স আপনার পছন্দকে প্রাধান্য দিয়েই সাইটে কিছু নজরকাড়া সাংলাস তুলেছে।ইচ্ছে হলে এখনি ঘুরে আসুন এখানে-http://www.nokkhotro.com/cloths/category/37

০ Likes ১ Comments ০ Share ৬০৩ Views

Comments (1)

  • - শহীদুল ইসলাম প্রামানিক

    জোমাদ্দার ভাই এই ছবিটা লালমনির হাটের কোন এক গ্রামের। উভয় পক্ষের গার্ডিয়ান প্রেমে বাদা দেয়ায় এক রসিতে এক গাছে ঝুলে দুই জন এক সাথে আত্মহত্যা করে।

    • - মো: মালেক জোমাদ্দার

      প্রামানিক ভাই ধন্যবাদ।

    - মুন জারিন আলম

    আমি আপনার ছবি টা প্রথম আলোতে খেয়াল করে দেখিনি। মর্মান্তক বেদনাদায়ক ছবি

    - আলমগীর সরকার লিটন

    দাদা কবিতার সাথে এরকম ছবি

    বেদনা ছাড়া কিছু নয়-----------

    • - মো: মালেক জোমাদ্দার

      লিটন ভাই আসলেই, পড়ার জন্য ধন্যবাদ।