কারিম গাজী

৩ বছর আগে লিখেছেন

কবিতা:না হল ঘর আমাদের

না হল ঘর আমাদের এই ধরনীর ঝর্নাতলে
চাতক পাখির মত না হয় জ্বলি
অবাক করা সেই দাহনে।
বুকে ভিতর ভেড়ে উঠা অপয়া সেই স্বপ্নগুলো
শুরুর আগেই শেষ হল যারা তারা কোন আলোয় জ্বলে।
মিথ্যে আশায় বুক পেতে রই দৃষ্টি রয়
পথের বাকে,
এসেছিলে তুমি হয়ত
দেখার আগেই চলে গেলে,
অবাক করা সেই বেদনায় দাহন হচ্ছি দিনে দিনে,
সেগুলো অপয়া ছিল শুরুর আগেই শেষ হল,
তবুও কেন এত পোড়ায় মিথ্যে আশায় মিথ্যে চলায়।
চাতক পাখির ধর্ম গুনে পেয়েছে অপেক্ষার ক্ষমতা
আমি না হয় শিখছি বসে মিথ্যে স্বপ্ন লালন করা,
জানি কি হবে শেষে তুমি আসবে নাকি
আমায় ছেড়ে চলে যাবে?
এই ধরনীতে তোমায় নিয়ে হল না ঘর বাধা
পরজন্মে পাব তোমায় এ বড্ড আদিখ্যেতা।
ধরনীর চাদের আলোয় আমি অচেনা
সুর্যের আলোয় আমায় যায় চেনা,
তাইত আমি পুড়েই গেলাম
এক মুঠো চাদের আলোর আশায়। continue reading
Likes Comments
০ Shares

Comments (1)

  • - মাসুম বাদল

    খুব খুব ভাললাগা

    সেই সাথে 

    অফুরন্ত শুভকামনা রইলো... emoticonsemoticonsemoticons

    • - গোখরা নাগ

      অনেক অনেক ভাললাগা জানালাম... ! 

কারিম গাজী

৩ বছর আগে লিখেছেন

গান:নিশ্চুপ নিস্তব্ধতায়

নিশ্চুপ নিস্তব্ধতায় তুমি আমি আছি বসে
কিছু সময় গেলো কেটে আমাদের
অভিমনে ভরা এ দুপুর,
জানি তুমি ফিরবে না আর কখনো
আমি দাড়াবো পথ আটকে
এভাবেই যাবে আমাদের দুজনের দুটি পথে
ভাল থেকো,তুমি ভাল থেকো
এ চাওয়াই আমার।

তুমি চলে গেছ তাই আমি বসে আছি
আমাদের চেনা পথে,
আমি আজো একা হাটি নিশ্চুপ মনে
ভেবে কাটে দিন তুমি যদি ফিরে আস
যদি কোন দিন মনে পড়ে আমায়
চলে এস তুমি আমি আজো তোমার অপেক্ষায়।

তোমার মনে জেগে উঠে কি সেই স্মৃতি কুড়েকুড়ে খায় কি তোমায়,
মনে পড়ে কি সেদিনের কথা
তুমি আর আমি অভিমানে ঢাকা পথে হেটে চলে যাওয়া
পিছনে চাও নি তুমি আমি ফিরেছি বারবার
মনে ছিল আশা সব ভুলে ধরবে আমার হাত,বুকে টেনে নিবে আবার continue reading
Likes Comments
০ Shares

Comments (0)

  • - মাসুম বাদল

    সালাম, 

    বড়ভাই...!!! 

    • - গোখরা নাগ

      emoticonsemoticons

কারিম গাজী

৩ বছর আগে লিখেছেন

গল্প: মৃন্ময়ী ও আমার মিথ্যে প্রেমের ইতিকথা।

পর্ব ৫
সকল নিরবতা ভেংগে মৃন্ময়ী  দৌড়  কাছে আসল,
আমাকে বুকে জড়িয়ে নিল।আমি ভেজা অনুভব করছি,তার চোখের জলে কাপড় ভিজে গেছে,আমার বুকে এক অবর্ণনীয় আনন্দ অনুভুত হল।কারো কান্নায় এত সুখ আছে আগে জানা ছিল না।
যে মেয়েটিকে এতকাল নির্দয় ভেবে ঘৃনা জমানোর চেষ্টায় ছিলাম,তার হৃদয়ে এত কমলতা আছে জানা ছিল না।প্রিয়জনের দূরে থাকলে মায়া বাড়ে কথাটি সত্য।
মনে করছি এই সুখ আজীবন থাকুক,কিন্তু আমি কি ভাবছি  অন্যের বউকে,সে অন্যের বউ আমি তাকে পাবার বাসনা রাখতে পারি না।
কিছুক্ষন নিরবতা ভেংগে আমার বুক থেকে তার মাথা সে উঠিয়ে নিল,
-আমাকে এখনো ভালবাস রোমেন?
-আমি নিজেকে সামলে নিলাম, না আমি তোমাকে ভালবাসি না।
তাহলে তোমাকে বুকে জড়িয়ে নিলাম তুমি বাধা দিলে না কেন?
-আজব প্রশ্ন কর কেন? আমি দুই বছর আগে তোমাকে বুকে জড়ানো ছাড়াই ভালবেসে ছিলাম।
সেদিন তুমি চলে গেছ কেন জানতে চাই নি,আজ কেন ফিরে এসেছ জানতে চাইব না।
তুমি তোমার ইচ্ছায় বুকে টেনেছ আবার নিজের ইচ্ছায় সরে গেছ,সেখানে আমি বাধা দেবার কে?
-তুমি এমনভাবে কথা বলছ কেন,অনেক দিন তোমার সাথে দেখা,তুমি এমন করলে কি কার কাছে যাব?
-আমি নিশ্চুপ।
-আমার আম্মু আমাকে বিয়ে দিয়ে দিয়েছে,আমার পরিবারের কেউ রাজী ছিল না,আমার এ ছাড়া পথ খোলা ছিল না।কিছুদিন ভেবেছিলাম তোমার কাছে চলে যাব,পরে ভাবলাম পাগলামো করার সীমা থাকা দরকার,তুমি আমাকে বিয়ে করে খাওয়াবা   কিভাবে,আমি যে তোমাকে লালন করতে পারবো তাও সম্ভব নয়।
-হুম বুঝলাম।
-আমি প্রায় সময় ভাবতাম তোমাকে কল দেই এবং দিয়েছিও ,তুমি কল ধরে আমার কন্ঠ বুজতে পারলে কেটে দিছ অনেক দিন।শুনেছি এখন অপরিচিত কল ধর না।
-ঠিকি শুনেছ তবে তোমার জন্য না,কারো সাথে কথা বলতে ইচ্ছা করে সেজন্য, continue reading
Likes Comments
০ Shares

কারিম গাজী

৩ বছর আগে লিখেছেন

গল্প: মৃন্ময়ী ও আমার মিথ্যে প্রেমের ইতিকথা।

পর্ব ৪
এই যে প্রেমিক সাহেব আপনার প্যান্ট খুলে যাচ্ছে,চুলের যা অবস্তা আপনার ভদ্র ছেলে কেউ বলবে না ,এইসব জিনিষগুলো আমি অপছন্দ করি,তাই নিজেকে একটু পরিবর্তন কর।
আমি কারো মনোরঞ্জনের জন্য নিজেকে পরিবর্তন করি না,একটু জোড় দিয়েই বললাম।
রোহি,রোমেন আমি চলে যাচ্ছি আম্মু খোজা শুরু করছে হয়ত।
আচ্ছা ভাল থেকো।
আমি আর রোহি হেটে চলে আসলাম যার যার বাসায়।

আমাদের কৃষি শিক্ষার প্রেকটিকাল সবাই আছে আমি আছি,
মৃন্ময়ী আমাকে ডাক দিল আমি ছুটে চলে গেলাম।
বন্ধু রা আমাকে দেখে ঠাট্টায় মেতে উঠেছে।
পরিক্ষার পর কি করবা,রোমেন?
কলেজে ভর্তি হব।
সেটাই ভাল করে পড়,আমি চাই তুমি বড় হবে রোমেন,অনেক বড় হবে।
এমন ভাবে বলতেছ যে তুমি আমাকে ছেড়ে চলে যাইতেছ?
কিছুনা  এমনি আমি জানি না কি করব?
আমাদের বাড়িওয়ালার ছেলেটা খুব বিরক্ত করছে,আমি এই জীবনে অনেক নষ্টামি দেখছি রোমেন।
কোথায় যাবা?
যশোর,আমার বোনের বাড়ি
সেখানে এক মাস থাকবো,যদি ভাল লাগে সেখানেই ভর্তি হব।
আমি কি করব?
এই তো একটা মাস থাক কষ্ট করে
তোমাকে যেহেতু ভালবেসেছি কষ্ট তো করতেই হবে।
অনেক দিন খোজ খবর পাইনি,রোহি থেকে শোনা যায় তার আম্মু জোড় করে তাকে বিয়ে দিয়েছে ফরিদপুর।
আমার কথা খুব মনে পড়ত তার,আমার কথা নাকি প্রায়ই জিজ্ঞেস করত।


আমি ভুলে গেছি আস্তে আস্তে,ভুলে থাকার অভিনয় টা শিখে গেছি ভালই।
পড়ালেখা এখন আর ভাল লাগে না, ভাবি।যার জন্য বড় হতাম সেই নাই পরোক্ষনে মনে পড়ে যায় আমাকে সে বলেছিল
আমি চাই তুমি বড় হও।

এই কথাটাই বাজতে থাকে কানে।
সেই দিনের দেখা হওয়ার... continue reading
Likes Comments
০ Shares

কারিম গাজী

৩ বছর আগে লিখেছেন

গল্প: মৃন্ময়ী ও আমার মিথ্যে প্রেমের ইতিকথা।

পর্ব ৩
আমাদের পরিক্ষার হল ছিল স্কুল হলের তিন তলায় ৩০৫ নাম্বার রোমে।মৃন্ময়ীরর হল ছিল দুই তলায় ২০১ নাম্বার রোমে।
আমি মৃন্ময়ী দের হলে প্রবেশ করে, আমি কারো সাথে কথা বললাম না কথা বললাম না।আমাকে দেখে মৃন্ময়ী বলল চল তোমার সাথে কথা আছে,আমাকে নিয়ে আড়ালে চলে গেল,রোহি দূরে দাঁড়িয়ে।
আচ্ছা রোমেন সেদিন তুমি কি করলা?
আমি তোমাকে বন্ধু ভাবি আর কিছু না।
তুমি আমাকে ভালবাস না বাস আমার কিছু আসবে যাবে না।
তুমি এভাবে করলে হবে বল,তুমি আমি ভাল বন্ধু ছিলাম অথচ আজ তুমি আমাকে দেখলে তেমন ডাক দাও না,আমিও লজ্জায় দিতে পারি না।
আমি তোমাকে ভালবাসি মৃন্ময়ী,তোমাকে ছাড়া আমি অন্যকিছু ভাবছি না।
রোমেন আমি তোমাকে কিছু কথা বলছি শোন:
ধরলাম তুমি আমাকে ভালবাস তোমার আমার প্রেমের পরিণতি কি?
তুমি এখনো মেট্রিক পরিক্ষা পাশ করতে পারনি।
তো কি হইছে?
তাহলে আমাকে তুমি লালন পালন করবা কিভাবে?তুমি প্রতিষ্ঠিত হতে হতে আরো ৭-৮ বছর।
অথচ আমার বিয়ে কথা চলতেছে,এই বছর না হোক,ইন্টার পরিক্ষার পর বিয়ে দিয়ে দিবে নিশ্চিত।
আমি তোমাকে বিয়ে করবোই
কখন আমি এতদিনে অন্যের বউ হব।
আমি তোমাকে বলে দিতেছি তোমার যতই বিয়ে হোক না কেন আমি তোমাকে বিয়ে করবোই,যদি তুমি রাজি থাক।
আমাকে তুমি দুইটা বছর সুযোগ দাও,প্লিজ।
কথাগুলা মৃন্ময়ী আমাকে বুঝাতে প্রয়োগ করেছিল সে কথা বুঝতে অনেক দেরি হয়ে গেছে।
পরিক্ষার সময় হয়ে গেছে তুমি আজ বিকেলে দেখা কর কথা আছে,
মৃন্ময়ী চলে গেল।

পরিক্ষা কেমন দিলাম বলতে পারবো না,
সবাই বাসায় চলে গেল আমি গেলাম না,সাদকান আর আমি হিন্দু মন্দিরের পাশে... continue reading
Likes Comments
০ Shares

Comments (0)

  • - গোখরা নাগ

    ভাললাগা জানালাম... !!! 

Load more writings...